বিয়ের দিন নামাজে সিজদারত অবস্থায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন বর আমিন

0

সিলেটের বিশ্বনাথ উপজে’লার দৌলতপুর ইউপিতে বিয়ের তারিখ নির্ধারণের দিনে সিজদারত অবস্থায় সুজন মিয়া নামে এক যুবকের মৃ’ত্যু হয়েছে।শুক্রবার দুপুরে জুমা’র নামাজ আদায় করতে গিয়ে এ ঘটনা ঘটে। ইউপির কালিটেকা গ্রামের বাসিন্দা সুজন মিয়া পেশায় রঙ মিস্ত্রী’।সুজনের বড়ভাই দবির মিয়া জানান, শুক্রবার বিকেলে তার বিয়ের দিন ধার্যের কথা ছিল।হবু শশুরবাড়ির লোকজনের আপ্যায়নের জন্যে নিজ হাতে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করে রেখেছিল। কিন্তু সকাল থেকেই বুকে ব্যথা অনুভব করতে থাকে।দুপুরে জুমা’র নামাজ পড়তে বুকে ব্যথা নিয়েই গ্রামের জামে ম’সজিদে যায় সুজন।ব্যথা প্রচণ্ড আকার ধারণ করলে সে সিজদায় পড়ে যায় এবং সিজদারত অবস্থায় মৃ’ত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। বিশ্বনাথ উপজে’লা সদরে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃ’ত ঘোষণা করেন।সুজনের আকস্মিক মৃ’ত্যুতে তার পরিবারে নেমে আসে শোকের ছায়া। সন্তানকে হারিয়ে বারবার মুর্ছা যাচ্ছিলেন তার মা।করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ৩ নভেম্বর থেকে রাজধানী একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। শুরুতে হাসপাতালের আইসিইউতে রাখা হয় অভিনেতাকে। অবস্থার উন্নতি হওয়ায় বুধবার (৪ নভেম্বর) বিকেলে কেবিনে স্থানান্তর করা হয় তাকে। বর্তমানে কেবিনেই রয়েছেন অপূর্ব।হাসপাতালে তার সঙ্গে আছেন নির্মাতা মিজানুর রহমান আরিয়ান। চিকিৎসকের বরাত দিয়ে তিনি আরও জানান, করোনায় অপূর্বর ফুসফুসের ৩৫ শতাংশ আক্রান্ত হয়েছে। বুকের সিটি স্ক্যানে তা ধরা পড়েছে। নির্মাতা আরিয়ান আরও বলেন, ‘অপূর্ব ভাইয়ের শারীরিক অবস্থা আবার খারাপ হয়েছে। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, তার দ্রুত আরোগ্য লাভের জন্য প্লাজমা লাগবে।’করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় কোয়ারেন্টিনে ছিলেন অপূর্ব। ফিরেছিলেন কাজেও। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগে শিহাব শাহীনের একটি ওয়েব ফিল্মের শুটিং করছিলেন তিনি। এ ছাড়া গত সপ্তাহে সাগর জাহানের পরিচালনায় একটি নাটকের চিত্রায়ণেও অংশ নিয়েছিলেন অপূর্ব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here